তিন স্তনওয়ালা এক নারী!

স্কুয়ার আমন্ত্রণে সাঁড়া দিয়ে আলিশার বাড়িতে পৌঁছালে তাকে একটি কুকুরের খাঁচার মধ্যে থাকতে দেওয়া হয়। এবং গলায় ‘ক্রীতদাস’ লেখা একটি গলাবন্ধ ঝুলিয়ে দেওয়া হয় তার গলায়।

সম্প্রতি জেসমিন ট্রিডভিট নামের যে মডেল তৃতীয় স্তন সংযোজনের দাবি করেছেন তিনি মাইকেল স্কুয়ার নামে এক মার্কিন কিশোরকে একদা যৌনদাস হিসেবে আটকে রেখেছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বন্দিদশায় ছুরি দিয়ে তার বুকে নাম লেখার চেষ্টাও করেন ট্রিডভিট।

স্কুয়ার অভিযোগ করে বলেন, জেসমিনের আসল নাম আলিশা হেসলার। আলিশার সঙ্গে অনলাইনে তার যোগাযোগ হয়। অধিকাংশ সময় যৌনতা নিয়ে তাদের মধ্যে আলাপ হতো। একসময় ফ্লোরিডার টাম্পায় আলিশার বাড়িতে তার সঙ্গে থাকার আমন্ত্রণ পান তিনি।

এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে স্কুয়ার তার বুকের দাগ দেখিয়ে জানান, একদিন জেসমিন একটি ছুরি দিয়ে তার বুকে নিজের নাম লেখার চেষ্টা করেন। তখন স্কুয়ার চিৎকার করতে থাকলেও তিনি থামেননি।

ব্রিটিশ দৈনিক মিররের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জেসমিন তার ফেসবুক পেজে স্কুয়ারের দাবি অস্বীকার করেছেন। তার এ অভিযোগ খুবই হাস্যকর বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জেসমিন যুক্তরাষ্ট্রের রেডিও স্টেশন রিয়াল রেডিও ১০৪.১ কে বলেছেন, সার্জারি করে তৃতীয় স্তন সংযোজন করিয়েছেন তিনি। এ জন্য তাকে গুণতে হয়েছে ২০ হাজার ডলার।-তৈয়বুর রহমান টনি (নিউ ইয়র্ক)

Must Like and Share 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*