কয়েকটি ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন নাকের ক্ষত

নাকের ভেতরে ঘা হলে চুলকায় ও যন্ত্রণা হয়। এমনকি হালকা ভাবে নাকে স্পর্শ করলেও তীব্র ব্যথার অনুভূতি হয়। অনেক সময় এর থেকে রক্তপাত ও হয়। সাধারণত ঠান্ডা বা ফ্লুতে আক্রান্ত হলেই এই সমস্যাটি তৈরি হয়। নাক দিয়ে বার বার শ্লেষ্মা বাহির হলে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হলে, পুষ্টির ঘাটতি হলে, নাকে ব্যাকটেরিয়া বা ভাইরাসের ইনফেকশন হলে এবং নাকের ভেতরে শুকিয়ে গেলে নাকে ক্ষত বা ঘা সৃষ্টি হতে পারে। এই সমস্যাটির ঘরোয়া প্রতিকার সম্পর্কে জানে নেব আজ।

১। ভিটামিন সি:-
ঘা ও ক্ষত সাড়াতে ভিটামিন খুব ভালো কাজ করে। তাই নাকের ভেতরের ঘা সাড়িয়ে তুলতে ভিটামিন সি গ্রহণ করুন। ভিটামিন সি এর উৎস গুলো হচ্ছে সাইট্রাস ফল যেমন- লেবু, কমলা, স্ট্রবেরি, আনারস ও টমেটো ইত্যাদি।

২। স্যালাইন:-
উষ্ণ গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে স্যালাইন তৈরি করুন এবং এই পানি দিয়ে নাকের ভেতরটা ধুয়ে নিন। এর ফলে প্রদাহ কমবে এবং জীবাণুও ধ্বংস হবে। স্যালাইন পানি দিয়ে নাক ধোয়ার ফলে নাক বন্ধ ভাব ও দূর হবে।

৩। আদা:-
আদা থেঁতলে পেস্টের মত করে নিন। এই পেস্ট নাকের ভেতরের ঘায়ের মধ্যে লাগিয়ে রাখুন। আদার প্রদাহনাশক উপাদান নাকের ক্ষত নিরাময়ে সাহায্য করবে।

৪। পেট্রোলিয়াম জেলি:-
নাকের ভেতরের আর্দ্রতা রক্ষা করে শুষ্কতা প্রতিরোধ করবে পেট্রোলিয়াম জেলি। ঘা শুকানোর ফলে যে ব্যথার সৃষ্টি হয় তা দূর করতে সাহায্য করে এটি। নাকের ব্যথা থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য নাকের ভেতরে পেট্রোলিয়াম জেলি বা ভ্যাসেলিন লাগান।

৫। প্রচুর তরল খাবার গ্রহণ করুন:-
নাকের শুষ্কতা প্রতিরোধের জন্য এবং হাইড্রেটেড থাকার জন্য পর্যাপ্ত পানি পান করুন। আদা ও দারচিনির চা পান করলে ক্ষতের প্রদাহ কমতে সাহায্য করবে। এছাড়াও গরম স্যুপ পান করলে প্রোটিন, ভিটামিন ও মিনারেলের মত পুষ্টি উপাদান পাওয়ার পাশাপাশি দ্রুত ঘা নিরাময়ে সাহায্য করবে।

৬। লাইসিন সমৃদ্ধ খাবার:-
লাইসিন একধরণের অ্যামাইনো এসিড যা ক্ষত নিরাময়ে সাহায্য করে। মাছ, পনির ও মটরশুঁটি লাইসিন সমৃদ্ধ খাবার। ইনফেকশন ভালো করতেও সাহায্য লাইসিন। তাই লাইসিন সমৃদ্ধ খাবার খান।

তাছাড়া আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করুন এবং স্ট্রেস মুক্ত থাকতে চেষ্টা করুন। স্ট্রেস কমলে ক্ষত নিরাময় প্রক্রিয়া দ্রুত হয়।

Must Like and Share 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*