নতুন বোতল বা জুতোর ভিতরে এই ধরনের ছোট্ট থলি পেয়েছেন? ভুলেও এটি ফেলে দেবেন না যে কারণে!!

একে বলা হয় সিলিকা জেল। এর কাজ হল আর্দ্রতা শুষে নিয়ে নিজের মধ্যে ধারণ করে রাখা।নতুন জুতো বা প্লাস্টিকের বোতলের ভিতর জিনিসটি অনেকেই পেয়েছেন। অনেক সময়ে ওষুধের শিশিতেও রাখা থাকে এই ধরনের ছোট্ট সাদা একটি থলি। উপর থেকে স্পর্শ করলে মনে হতে পারে ভিতরে বুঝি নুন জাতীয় কিছু রয়েছে। গায়ে লেখা থাকে সতর্কবার্তা—খেয়ে ফেলবেন না, কিংবা শিশুদের থেকে দূরে রাখুন। কেউ যদি কৌতূহলী হয়ে থলিটি খুলে দেখেন, তাহলে দেখতে পাবেন ভেতরে রয়েছে ছোট ছোট সাদা, কিছুটা স্বচ্ছ একগুচ্ছ দানা।

একে বলা হয় সিলিকা জেল। এর কাজ হল আর্দ্রতা শুষে নিয়ে নিজের মধ্যে ধারণ করে রাখা। আমরা সাধারণত নতুন কেনা কোনও জিনিসের ভেতর সিলিকা জেলের থলি পেলে তা সঙ্গে সঙ্গে ফেলে দিই। আদপে এই সিলিকা জেলের থলি কিন্তু নানা কাজে লাগতে পারে। যদি নতুন কেনা জিনিসের সঙ্গে পাওয়া সিলিকা জেলের থলিগুলি জমিয়ে রাখতে পারেন, তাহলে অনেক উপকার পাবেন। ভাবছেন কী ধরনের উপকার? আসুন, জেনে নিই—

১. পানিতেমোবাইল ফোন পড়ে গেলে: আপনার মোবাইলটি পানিতেপড়ে গিয়েছে? কিংবা মোবাইলেই পড়ে গিয়েছে পানি? চিন্তা নেই। মোবাইলটি অফ করে ব্যাটারি, সিম, মেমোরি কার্ড সব খুলে নিয়ে শুকনো কাপড় বা তুলো দিয়ে যতটা পারেন শুকনো করে মুছে নিন। তারপর ফোনটিকে একটি প্লাস্টিকের বাক্সে রেখে ভিতরে রেখে দিন পাঁচ-ছ’টি সিলিকা জেল ব্যাগ। ব্যাগগুলি মোবাইলের সংস্পর্শে রাখতে পারলেই ভাল। এতে মোবাইলের ভিতরে জমে থাকা জলকণা ও আর্দ্রতা শুষে নিতে পারবে ব্যাগে থাকা সিলিকা জেল।

২. জিনিসপত্রকে মরচের হাত থেকে বাঁচানো: বাড়ির যে ধাতব জিনিসটিকে জং ধরা বা মরচে পড়ার হাত থেকে বাঁচাতে চান, সেটিকে একটি এয়ারটাইট প্লাস্টিকের বাক্সে রেখে ভিতরে রেখে দিন তিন-চারটি সিলিকা জেলের প্যাকেট। জং ধরবে না। দাড়ি কামানোর সেফটি রেজার এইভাবে রাখলে ব্লেডটি অনেকদিন চলবে। রুপো বা অন্য কোনও ধাতুর তৈরি গয়নাও এই কৌশলে রাখতে পারলে সেগুলি একদম নতুনের মতো থাকবে।

৩. খাবারদাবারকে তরতাজা রাখা: যে পাত্রে খাবার রাখছেন তার ঢাকনার ভেতরের দিকে কয়েকটি সিলিকা জেলের ব্যাগ সেলোটেপ দিয়ে আটকে দিন। এবার ঢাকনা বন্ধ করে দিন। খাবার অনেকক্ষণ তাজা থাকবে। ড্রাই ফুট, বাদামভাজা, ছোলাভাজা ইত্যাদির পাত্রে সিলিকা জেল রাখলে বিশেষ ফল পাবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, সিলিকা জেলের ব্যাগ যেন খাদ্যদ্রব্যকে স্পর্শ না করে।

৪. জরুরি কাগজপত্র ও ফোটোগ্রাফকে ঠিকঠাক রাখা: আর্দ্রতার কারণে অনেক সময়েই আমাদের জরুরি কাগজপত্রে একটা স্যাঁতস্যাঁতে আঠালো ভাব চলে আসে। সেক্ষেত্রে যে ড্রয়ার বা আলমারির যে তাকে কাগজ বা ফাইলপত্র রাখছেন সেখানে কয়েকটি সিলিকা জেল ব্যাগ রেখে দিন। সম্ভব হলে ফাইলের ভিতরেও রাখুন একটি কি দু’টি ব্যাগ। দেখবেন আর ওই স্যাঁতস্যাঁতে ভাব আসবে না। ফোটো অ্যালবামের ভিতর সিলিকা জেলের ব্যাগ রাখলে ছবিগুলি

Must Like and Share 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*