Published On: Thu, Jan 12th, 2017

যেসব কারণে একজন নারী সন্তান ধারণে অক্ষম হয়ে যায়

একজন নারীর পূর্ণতা আসে তার মাতৃত্বের মধ্য দিয়ে। যে নারী সন্তান ধারণে অক্ষম তাকে বন্ধ্যা বলে হেয় করা হয়। কিন্তু বর্তমান যুগে নারীর সন্তান ধারণ ক্ষমতা-সংক্রান্ত অনেক সমস্যা দেখা দিচ্ছে।তিনজনের মধ্যে একজন নারী গর্ভধারণে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন প্রতিনিয়ত। তাই সতর্কতা খুবই জরুরি। কোনো ধরনের সমস্যা নজরে পড়লেই যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

ডিম্বাণু উৎপাদন কমে যাওয়া

নারীদের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিম্বাণু তৈরির ক্ষমতা কমতে থাকে। এবং সুস্থ স্বাভাবিক ডিম্বাণুর পরিমাণ কমে যেতে থাকে। সে কারণে বয়স একটু বেশি হয়ে গেলে সন্তান ধারণ সমস্যা কমে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। বিশেষ করে বয়স ৩৫ হয়ে গেলে অনেক কঠিন হয়ে যায় নারীদের সন্তান ধারণ করার বিষয়টি।

ওভুলেটিং সমস্যা

অনেক সময় ওভারিতে ডিম্বাণু পরিপূর্ণভাবে তৈরি হতে পারে না। ওভারি সুস্থ সবল ডিম্বাণু তৈরি না করতে পারা বন্ধ্যাত্ব তৈরি করতে পারে। মাসিকে অনিয়ম হওয়া, মাসিক না হওয়া এই সমস্যার প্রধান লক্ষণ। এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে ওজন সঠিক রাখার চেষ্টা করতে হবে।

এন্ডোমেট্রিওসিস

এন্ডোমেট্রিওসিস সমস্যার কারণে অনেক সময় নারীরা সন্তান ধারণ ক্ষমতা হারাতে পারেন। যখন এন্ডোমেট্রিয়াল টিস্যু ইউটেরাসের পরিবর্তে দেহের অভ্যন্তরে অন্য স্থানে তৈরি হয় তখন এই সমস্যা দেখা দেয়। পেলভিক অংশে প্রচণ্ড ব্যথা, মাসিকের সময় খুবই অস্বাভাবিক ব্লিডিং থাকা এবং যৌন মিলনে অতিরিক্ত ব্যথা হওয়ার সমস্যা অবহেলা না করে দ্রুত ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম

যখন ওভারির ভেতরের ছোট্ট ফলিকলগুলো বড় হওয়া ও পরিপূর্ণ হওয়া বন্ধ করে দেয় তখন এই সমস্যা দেখা দেয়। এই সমস্যার পেছনের মূল কারণ হচ্ছে হরমোনের ভারসাম্য না থাকা। ওজন অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়া, দেহ ও মুখের লোম অতিরিক্ত বৃদ্ধি পাওয়া এবং অনিয়মিত মাসিক এই সমস্যার লক্ষণ।

ফেলোপেন টিউব সমস্যা

আরও একটি সমস্যার কারণে নারীরা সন্তান ধারণ ক্ষমতা হারাতে পারেন, তা হচ্ছে ফেলোপেন টিউব সমস্যা। অনেক সময় এই ফেলওপেন টিউব ব্লক এবং নষ্ট থাকলে সন্তান ধারণ ক্ষমতা গড়ে উঠে না নারীদের মধ্যে। যৌন মিলন সংক্রান্ত রোগ, পেলভিক ইনফ্লেমেটরি রোগ এবং স্টেরিলাইজেশন সার্জারির কারণে এই ফেলোপেন টিউব সমস্যা দেখা দেয় নারীদের মধ্যে।

Must Like and Share 🙂

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>